ব্লগস্পট ব্যবহার করে বিনামূল্যে নিজের ব্লগ/ওয়েবসাইট তৈরি (দিন ২/৭)

মনে রাখতে হবে, একটি ব্লগের প্রাণ হলো এখানে থাকা পোস্ট। প্রাসঙ্গিক ডোমেইন নেম, সুন্দর ও রেসপোন্সিভ ডিজাইন, অপটিমাইজেশন, এসইও, অনলাইন ও অফলাইনে প্রচারণা প্রভৃতির গুরুত্ব রয়েছে, তবে এটা কিন্তু মনে রাখতে হবে যে, ভিজিটররা লেখা পড়ার জন্যই ব্লগে আসবে। তাই নিয়মিত ও মানসম্মত পোস্ট যদি না করা হয়, তাহলে স্বাভাবিকভাবেই ব্লগটি ভিজিটরদের কাছে গুরুত্ব পাবে না।

একটি পোস্ট যুক্ত করা

প্রথমেই আমাদের https://www.blogger.com/ এ যেতে হবে এবং লগ ইন করা না থাকলে করে নিতে হবে। এখন আমরা যে ব্লগটি বানিয়েছিলাম, তার ড্যাশবোর্ড দেখা যাচ্ছে। নিচে ডান দিকে একটিবাটন দেখা যাচ্ছে, এখানে ক্লিক করতে হবে।  এখন আমরা পোস্ট লেখার করার পেজ পাবো।

বোঝার সুবিধার্থে ছবিতে নাম্বারিং করে দিয়েছি। ১ চিহ্নিত স্থানে পোস্টের টাইটেল বা শিরোনাম লিখতে হবে। ৯ চিহ্নিত বক্সটিতে পোস্ট লিখতে হবে। বিভিন্ন টুল রয়েছে ২-৮ চিহ্নিত টুলবক্সে। তবে ২ থেকে HTML অথবা Compose মোডের মধ্য সুইচ করা যায়। অর্থাৎ, জানা থাকলে HTML ভাষায় পোস্ট লেখার সুবিধা আছে। ৩ আনডু ও রিডু করার জন্য। লেখার মধ্যে কোন ভুল হলে আনডু করে নিতে পারেন। আনডু করার পর পূর্বাবস্থায় ফিরিয়ে আনতে রিডু করা যায়।

লেখার ফন্ট, আকার ও ধরণ নির্ধারণ করা যাবে ৪ থেকে। এখানে Major Heading ধরণটি ব্যবহার না করাই উত্তম, কেননা, এটি H1, যা শুধু সাইটের টাইটেলে ব্যবহার করা উচিৎ, এটা ভালো SEO (সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশ) এর জন্য সহায়ক। ৫ এ রয়েছে বিভিন্ন টেক্সট ফরমেটিং। অর্থাৎ, বোল্ড, ইতালিক, আন্ডারলাইন, স্ট্রাইকথ্রো, কালার ও হাইলাইট। ৬ নাম্বারে আছে হাইপারলিঙ্ক, ছবি, ভিডিও ও ইমোজিসহ স্পেশাল ক্যারেক্টার ব্যবহারের অপশন। আমরা ইন শা আল্লাহ এ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব আগামীদিন। ৭-এ আছে এলাইনমেন্ট অপশন। ৮-এ আরো কিছু অপশন আছে, যেমন- লিস্ট, কোট, ফরমেটিং মুছে ফেলা প্রভৃতি।

এখন সাইডবার (১০ চিহ্নিত) এ কয়েকটি অপশন রয়েছে। Labels থেকে পোস্ট সহজে খুঁজে পাওয়ার জন্য লেবেল যুক্ত করে দেওয়া যাবে। যেমন, এই পোস্টটির ক্ষেত্রে লেবেল দেওয়া যেতে পারে টিউটোরিয়াল, ব্লগস্পট এরকম। Published On থেকে পাবলিশ হওয়ার সময় নির্বাচন করা যাবে। তাৎক্ষণিক পাবলিশ করে ফেলতে পারেন অথবা কোন সময় নির্ধারণ করে দিতে পারেন। Permlink থেকে পোস্টে কাস্টম ইউআরএল সেট করা যাবে। Location অপশনটি থেকে আপনার লোকেশন যুক্ত করে দিতে পারেন। সবশেষে Options থেকে কমেন্ট করা যাবে কিনা তা নির্ধারণ করা যায়।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এখন পাবলিশ (১১) করা যেতে পারে। অথবা পাবলিশের আগে Preview দেখে নিতে পারেন। আর পোস্ট লেখা আংশিক সম্পন্ন কিন্তু পুরোপুরি শেষ না হলে Preview এর ড্রপডাউনে ড্রাফট হিসেবে সেভ করে রাখার অপশন রয়েছে। পরবর্তীতে ব্লগের ড্যাশবোর্ডের পোস্ট সেকশনে ড্রাফটগুলো পাওয়া যায়।

Series Navigation<< ব্লগস্পট ব্যবহার করে বিনামূল্যে নিজের ব্লগ/ওয়েবসাইট তৈরি (দিন ১/৭)ব্লগস্পট ব্যবহার করে বিনামূল্যে নিজের ব্লগ/ওয়েবসাইট তৈরি (দিন ৩/৭) >>
0 0 vote
Article Rating
Default image
তাহমিদ হাসান
এইতো, প্রতি ষাট সেকেন্ডে জীবন থেকে একটি করে মিনিট মুছে যাচ্ছে, আর এভাবেই এগিয়ে চলেছি মৃত্যুর পথে, নিজ ঠিকানায়। জীবন বড় অদ্ভুত, তাই না?
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x