ফটোপি: ওয়েব ব্রাউজারে (সীমিত আকারে) ফটোশপ? (স্মার্টফোন/পিসি)

এক্সপেক্টেশন খুব বেশি ছিলো না, মনে করেছিলাম, ওয়েব ব্রাউজার বেজড একটা ফটো এডিটরে কী-ই বা থাকতে পারে। তবে ব্যবহার করে দেখলাম ফটোপি (Photopea) আমার ভাবনার থেকে অনেক এডভান্সড। একটি অনলাইন ফটো এডিটর এতটা ফাংশনাল হতে পারে, এটা আসলে আমার ধারণার বাইরে ছিলো। আরো অবাক হয়েছি যখন দেখলাম, এন্ড্রয়েডেও এটা ভালোভাবেই কাজ করে। ব্যবহার করতে হলে শুধু তাদের ওয়েবসাইটে যেতে হবে। কোন ইন্সটলেশন, রেজিস্ট্রেশন প্রয়োজন নেই।

ইন্টারফেস ঠিক কোন সফটওয়্যারের মত সেটা নিশ্চয়ই বুঝতে অসুবিধা হচ্ছে না। যদি ফটোশপের সাথে পরিচয় থাকে, এটা ব্যবহার করতে কোন অসুবিধা হওয়ার কথা নয়, কারণ এর ব্যবহার পদ্ধতি ফটোশপের অনুরূপ। অবশ্যই একটি ওয়েব ব্রাউজার বেজড ফ্রি সফটওয়্যার ফটোশপের মত এডভান্সড হবে না। তবে যতটা আছে তা ইমপ্রেসিভ বলতেই হচ্ছে।

আমি একজন গিম্প ইউজার। ফটোশপ অনেক বছর আগে শেষবার ব্যবহার করেছি। তাও পুরনো ভার্সন। Photoshop CC বা লেটেস্ট ভার্সনগুলো চালানো হয়নি। তাই বহুদিন পরে ফটোশপের একটা ফিল পেয়ে ভালোই লাগলো। ভালো একটি গ্রাফিক্স এডিটর টুল হতে হলে লেয়ার, চ্যানেল, লেয়ার মাস্ক, পথ, গাইড, গ্রিড প্রভৃতি ফিচারগুলো বেশ প্রয়োজন। আর ফটোপিতে এরকম সবচেয়ে দরকারি ফিচারগুলোর কোনটিই বাদ যায়নি!

গ্রাডিয়েন্ট টুলে গিয়ে প্রিডিফাইনড গ্র্যাডিয়েন্টগুলো দেখে বেশ মজা পেয়েছি। যতদূর মনে পড়ে ফটোশপে ঠিক এই গ্র্যাডিয়েন্টগুলোই ছিলো। নতুন গ্রাডিয়েন্ট তৈরির পদ্ধতিও ঠিক ফটোশপের মতই। মোদ্দা কথা, তারা ফটোশপের ফিল দেওয়ার চেষ্টা ভালোভাবেই করেছে। উপরে টুল অপশন, বামে টুল গ্রুপিংসহ টুলবার, ডানে অন্যান্য উইন্ডোগুলো রয়েছে।

যদি আমরা টুলবক্সের দিকে লক্ষ্য করি, ফটোশপের প্রায় সব টুলই আছে। Pen Tool, Magnetic Lasso, Magic Wand, Dodge, Heal Selection সবই আছে এবং কাজও করে ঠিকঠাক। Slice Tool এর মত এডভান্সড টুলও বাদ পড়েনি। বেশ কিছু রেডি ফিল্টারও আছে দেখলাম, ভালো ব্যাপার।

বাংলা লেখা সমর্থন একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার অনেকের জন্যই। ফটোপিতে প্রচুর ফন্ট যুক্ত আছে, তবে, বাংলা কোন ফন্ট চোখে পড়েনি। যাহোক, ttf ফাইল থেকে এখানে ফন্ট এড করা যায়। বাংলা লিখতে হলে কোন বাংলা ফন্ট লোড করে সেট করে নিতে হবে, নাহলে বক্স বক্স আসে।

ফটোপিতে পেইড একাউন্ট তৈরি করে নেওয়ার সুযোগ আছে। তবে ফ্রি-তে সব ফিচারই পাওয়া যায়। শুধু ডানদিকে একটা বিজ্ঞাপন দেখায় আর হিস্টরি ৩০টি পর্যন্ত সংরক্ষিত থাকে। পেইড ভার্সনে বিজ্ঞাপন নেই আর হিস্টরি ৬০টি পর্যন্ত সংরক্ষিত থাকে, ফলে বেশিবার আনডু করা যায়। পিসিতে ফায়ারফক্স ব্রাউজার ব্যবহারকারীদের জন্য একটা টিপস, ব্যবহারের সময় মেনুবার এনাবল রাখতে পারেন। কেননা, ফায়ারফক্সে alt বাটন চাপলে মেনুবার টগল হয়, তাই অসুবিধা হয়। তো, মেনুবার এনাবল রাখলে সুবিধা হয়।

PSD, SVG, XCF সহ বিভিন্ন ফর্মেট এখানে সমর্থিত। যাইহোক, কাজের সময় সবকিছু PSD তে কনভার্ট করে নেওয়া হয়। তবে এখানে তৈরি করা PSD ছবি আমি গিম্প দিয়ে ওপেন করতে পারিনি। ফটোশপ থেকে করা যাবে কিনা জানি না। বিভিন্ন ফর্মেটে এখান থেকে ছবি এক্সপোর্ট করা যাবে, JPG, PNG, GIF, PDF, SVG, WEBP, ICO এরকম জনপ্রিয় ফর্মেটগুলোসহ।

তো, সবমিলিয়ে আমার ভালো লেগেছে ফটোপি ব্যবহার করে। অবশ্যই এটি প্রফেশনাল কাজে ব্যবহারের জন্য যথেষ্ট নয়, কিন্তু সাধারণ প্রয়োজনগুলো বেশ পূরণ করতে পারে। আমার মনে হয় একবার ব্যবহার করে দেখে নিতে পারেন।

0 0 vote
Article Rating
Default image
তাহমিদ হাসান
এইতো, প্রতি ষাট সেকেন্ডে জীবন থেকে একটি করে মিনিট মুছে যাচ্ছে, আর এভাবেই এগিয়ে চলেছি মৃত্যুর পথে, নিজ ঠিকানায়। জীবন বড় অদ্ভুত, তাই না?
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x