পেঙ্গুইনীয় (পর্ব-০৫): আমি আর লিনাক্স

নতুন কিছুর স্বাদ নেওয়াটা মজার। লিনাক্সের নাম শোনার আগেও উইন্ডোজ এক্সপি বাদে আর কোন উইন্ডোজ চালানোর আগ্রহ ছিলো। তারপর উইন্ডোজ এক্সপি সার্ভিস প্যাক থ্রির সাথে পরিচিত হলাম, ওটা সম্ভবত মাইক্রোসফটের অফিসিয়াল ভার্সন ছিলো না, তবে দেখতে খুব সুন্দর ছিলো। তারপর উইন্ডোজ সেভেন। যতদূর মনে পড়ে, ২০১৩ সালে ক্লাস সিক্সের আইসিটি বইয়ে জেনেছিলাম, যে বিনামূল্যের একটা ওএস আছে। বইয়ে অবশ্য এ নিয়ে শুধু দুই লাইন ছিলো, লিনাক্সের নাম সম্ভবত ছিলো না। তবে, তখন আগ্রহ বোধ করি বিনামূল্যের এই অপারেটিং সিস্টেম চালাতে। তবে লিনাক্সের প্রতি ভালোবাসার শুরু হয় ২০১৪ সালের দিকে, কিশোর কণ্ঠ পত্রিকায় ‘বন্ধুত্বের বৃত্ত উবুন্টু’ শিরোনামে একটা লেখা পড়ে। ওপেন সোর্স ও উবুন্টু নিয়ে কথা ছিলো সেখানে। মূলত, সেই ভালোবাসা থেকেই আমি লিনাক্স চালাই। তখন তো আর ১ জিবি সাইজের আইএসও ডাউনলোডের মত ভালো ইন্টারনেট কানেকশন ছিলো না, কিন্তু লিনাক্সের প্রতি আগ্রহ খুব বোধ করতাম। অনলাইনে বিভিন্ন লিনাক্স নিয়ে পোস্ট পড়তাম। আর উইন্ডোজে উবুন্টুর স্কিনপ্যাক ইন্সটল করে দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর চেষ্টা করতাম।

২০১৫ সালে এসে সম্ভবত প্রথম লিনাক্স ইন্সটল করি। আব্বু ঢাকায় গিয়েছিলো, তখন লিনাক্স ডিস্ক নিয়ে আসতে বলি। তবে সেসময় আমাদের বাংলালায়ন মডেম (সে এক ইতিহাস) লিনাক্স সমর্থিত ছিলো না। কাজেই লিনাক্সে রেগুলার হতে পারিনি। অবশ্য উইন্ডোজে ধীরে ধীরে GIMP, LibreOffice সফটওয়্যারগুলো চালানো শুরু করি। ২০১৭ এর শুরুর দিকে সম্ভবত মোটামুটি রেগুলার লিনাক্স চালাতে শুরু করি। তখন সিমে ১০-২০ টাকায় ১-২ জিবির অফার খুঁজে নেট কিনে চালাতাম। তারপর একসময় পাইরেসির প্রতিও অভক্তি চলে আসে। উইন্ডোজকে বিদেয় করে দিই এবং পেঙ্গুইনদের রাজ্যে চলে আসি! এরপর এখন তো ব্রডব্যান্ড কানেকশন আছে। নিয়মিত নতুন নতুন আইএসও ডাউনলোড করি আর ইন্সটল করি আর নতুন নতুন লিনাক্স চালাই। ফান ফ্যাক্ট, আমার পিসিতে এখন ৫টা লিনাক্স ওএস একসাথে আছে, কম্পিউটার চালু হওয়ার সময় পছন্দের ওএসটি সিলেক্ট করে নেওয়া যায়। হ্যাঁ, লিনাক্সে কিন্তু এটাও সম্ভব!

Series Navigation<< পেঙ্গুইনীয় (পর্ব-০৪): লিনাক্স কেন চালাবো?পেঙ্গুইনীয় (পর্ব-০৬): ডিস্ট্রো, ডেস্কটপ এনভায়রনমেন্ট ও উইন্ডো ম্যানেজার >>
0 0 vote
Article Rating
Default image
তাহমিদ হাসান
এইতো, প্রতি ষাট সেকেন্ডে জীবন থেকে একটি করে মিনিট মুছে যাচ্ছে, আর এভাবেই এগিয়ে চলেছি মৃত্যুর পথে, নিজ ঠিকানায়। জীবন বড় অদ্ভুত, তাই না?
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x