উবুন্টু ১৯.১০, নতুন উবুন্টু চলে এসেছে… জেনে নিন নতুন যা যা আছে!

প্রতিবছর উবুন্টু এপ্রিল ও অক্টোবর মাসে নতুন দুটি ভার্সন রিলিজ করে। এই ধারাবাহিকতায়, চলে আসলো উবুন্টুর নতুন রিলিজ। বরাবরের মতই উবুন্টুর ভার্সন হয় YY.MM ফরমেটে অর্থাৎ, অক্টোবর, ২০১৯ এর ভার্সন হিসেবে এটি উবুন্টু ১৯.১০।

উবুন্টু ১৯.১০

এই ভার্সনের কোডনেম Eoan Ermine। যদিও, আমি একাধিক পোস্টে আগেও উল্লেখ করেছি, যারা এখনো জানেন না, তাদের জন্য আবারো বলে রাখছি উবুন্টুর কোডনেমও একটি নিয়ম মেনে চলে। কোডনেম দুই শব্দে হয় এবং প্রথম শব্দটি বিশেষণ, পরের শব্দটি বিশেষ্য। দুই শব্দেরই প্রথম বর্ণ একই হবে এবং তা প্রত্যেক ভার্সনে পূর্ববর্তী ভার্সনের কোডনেমের প্রথম বর্ণের পরবর্তী বর্ণ হবে (যেমন, Disco Dingo এর পর Eoan Ermine)।

উবুন্টু ১৯.১০ একটি নন এলটিএস আপডেট, অর্থাৎ, এতে ৯ মাস পর্যন্ত সাপোর্ট ও আপডেট দেওয়া হবে। এরপর আপনাকে পরবর্তী ভার্সনে (২০.০৪, যেটা ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে আসার কথা) আপগ্রেড করে নিতে হবে। বলে রাখি, উবুন্টুর রিলিজ দুরকম, নন এলটিএস ও এলটিএস। এলটিএস রিলিজ দুবছর পরপর বের হয় এবং এতে ৫ বছর সাপোর্ট দেওয়া হয়। উবুন্টু ২০.০৪ এলটিএস হবে।

নতুন যা আছে

NVIDIA ড্রাইভার আইএসওতে সংযুক্ত

NVIDIA হার্ডওয়্যার ব্যবহারকারীদের জন্য ভালো খবর। NVIDIA এর প্রপ্রাইটরী ড্রাইভারগুলো এখন উবুন্টু আইএসও তে সংযুক্ত থাকবে। এতে ইন্সটলের পর আলাদাভাবে ড্রাইভার ইন্সটল করতে হবে না এবং পারফর্মেন্সে ইম্প্রুভমেন্ট হবে।

ZFS File System সাপোর্ট

কথাটা হলো, এই জিনিসটা নিয়ে আমার কোন ধারণা নেই। আপাতত আগ্রহও হচ্ছে ন। তবে আপনি ZFS নিয়ে এখানে জানতে পারবেন।

উবুন্টুতে এক্সপেরিমেন্টাল ফিচার হিসেবে এটা যুক্ত হয়েছে। ইন্সটলের সময় আপনি ZFS সিস্টেমে ইন্সটল করতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে আপনাকে আপনার হার্ডডিস্ক সম্পূর্ণ খালি করে ইন্সটল দিতে হবে।

বুট স্পিডে উন্নতি

উবুন্টুর ব্যাকএন্ডে কিছু কাজের মধ্যমে বুট স্পিড আরো দ্রুত করা হয়েছে। তবে এটা অনেকেই হয়ত ফিল করতে পারবে না। ইন্টেল হার্ডওয়্যার ব্যবহারকারীরা এখন বহুল প্রতীক্ষিত ফ্লিকার-ফ্রি বুট এক্সপ্রেরিয়েন্স পেতে পারে।

Gnome 3.34

উবুন্টুতে রয়েছে Gnome ডেস্কটপের লেটেস্ট ভার্সন অর্থাৎ, Gnome 3.34। ফলে এর নতুন ফিচারগুলো আপনি উবুন্টুতে পেয়ে যাচ্ছেন। এখন গ্নোম শেলের অ্যাপলিকেশন ওভারভিউয়ে আপনি কয়েকটি অ্যাপলিকেশন নিয়ে ড্রাগ এন্ড ড্রপ সিস্টেমে ফোল্ডার তৈরি করতে পারবেন, যেটা খুব প্রয়োজনীয় একটি আপডেট মনে করি।

সেটিংস অ্যাপে কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। ওয়ালপেপার ও লক স্ক্রিন সিলেক্ট স্ক্রিন এখন আগের চেয়ে ইম্প্রুভড (এবং মেইনস্ট্রিম বলা চলে)। নাইট লাইট সেকশনকে এখন আলাদা করা হয়েছে, ওয়াইফাই সেটিংসকে ইম্প্রুভ করা হয়েছে।

সিপিইউ ইউজেজ আগের চেয়ে কম হবে এবং পারফর্মেন্সে উন্নতি এনেছে গ্নোমের নতুন ভার্সন। গ্নোমের এই ভার্সনের নতুন ফিচারগুলো এখানে দেখুন।

উবুন্টু ডকে ইউএসবি আইকন

ইউএসবি ড্রাইভ বা মাউন্টেবল স্টোরেজযুক্ত মোবাইল ডিভাইস সংযুক্ত করলে এখন ডকেই এর আইকন প্রদর্শন করবে। সেখান থেকে আপনি তা ওপেন/ইজেক্ট/মাউন্ট করতে পারবেন।

থিম ও ওয়ালপেপার

উবুন্টুতে তাদের Yaru থিমের নতুন দুটি ভ্যারাইয়েশন যোগ করা হয়েছে। লাইট ও ডার্ক। লাইট থিমটি অনেকটা বিখ্যাত থিম Adwaita এর মত লাগলো, তবে স্কাই ব্লু এর পরিবর্তে উবুন্টুর অরেঞ্জ টোন। তবে, আউট অফ দা বক্স আগের মতই থিম পরিবর্তনের কোন টুল দেওয়া নেই। আপনাকে গ্নোম-টুইকসের সাহায্য নিতে হবে।

লেটেস্ট কার্নেল

থাকছে লেটেস্ট Linux Kernel 5.3। এতে নতুন কী আছে এখানে দেখুন।

সফটওয়্যার আপডেট

অবশ্যই নতুন রিলিজে লেটেস্ট সফটওয়্যারগুলো আপনি পেয়ে যাবেন। এর মধ্যে আছে:

  • LibreOffice 6.3
  • Firefox 69
  • Thunderbird 68
  • GNOME Terminal 3.34
  • Transmission 2.9.4
  • GNOME Calendar 3.34
  • Remmina 1.3.4
  • Gedit 3.34

এরসাথে উবুন্টুর রিপোজিটরীতে থাকা অন্যান্য অ্যাপ, যেগুলো প্রি-ইন্সটলড নেই, সেগুলোর লেটেস্ট ভার্সন সফটওয়্যার সেন্টারে পেয়ে যাবেন আশা করা যায়। তবে সফটওয়্যার সেন্টারটি তারা আপডেট করেনি। এর বছর দুয়েকের পুরনো 3.30 ভার্সনটি আপনি পাবেন।

যা থাকছে না

উবুন্টুর পূর্ণ ৩২ বিট আর্কাইভ আর মেইনটেন করা হবে না। তবে চিন্তার কারণ নেই, ৩২ বিট অ্যাপগুলো, অথবা যেই অ্যাপগুলো ৩২ বিটের উপর নির্ভরশীল যেমন, ওয়াইন বা স্টিম সেগুলো চালাতে সমস্যা হবে না। উবুন্টুর লাইট থিমটি এবার ডিফল্ট করার কথা ছিলো (যেটা আমারও তেমন পছন্দ হয়নি), তবে কমিউনিটির ফিডব্যাকে তা করা হচ্ছে না। গ্নোম শেলের শর্টকাটে উন্নতি করাকে আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে। ফ্র্যাকশনাল স্কেলিং সাপোর্ট এবারও এক্সপেরিমেন্টাল হিসেবে থাকবে। আর সবশেষে, শুরুর দিকে ইঙ্গিত দেওয়া হলেও এই রিলিজে এন্ড্রয়েডের সাথে কানেক্ট করার জন্য GSConnect ডিফল্ট থাকবে না।

ডাউনলোড

উবুন্টু ১৯.১০ এর ৬৪ বিট ডেস্কটপ ভার্সন আইএসও ডাউনলোড করে নেওয়া যাবে এখান থেকে। অন্যান্য এডিশনগুলোর জন্য এখানে দেখুন।

সোর্স: https://www.omgubuntu.co.uk/2019/05/ubuntu-19-10-release-features

About the Author: তাহমিদ হাসান

এইতো, প্রতি ষাট সেকেন্ডে জীবন থেকে একটি করে মিনিট মুছে যাচ্ছে, আর এভাবেই এগিয়ে চলেছি মৃত্যুর পথে, নিজ ঠিকানায়। জীবন বড় অদ্ভুত, তাই না?

You May Also Like

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of